Aero L 39 বিমানটি হচ্ছে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর একটি এডভান্সড ট্রেইনার এয়ারক্রাফট। এতে লাইট এটাক ফ্যাসিলিটি ও আছে।

এই বিমানটি চেক প্রজাতন্ত্রের তৈরি। এই পর্যন্ত এর বহুত ক্রাশ রেকর্ড আছে। শুধুমাত্র ২০১২ সালেই ৬ টি ক্রাশ করে আর বহু পাইলট প্রাণ হারায়।

আর এই ছয়টির মধ্যে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীর একটি ছিলো। ৮ এপ্রিল ২০১২ সালে টাঙ্গাইলে প্রশিক্ষন অবস্থায় ইঞ্জিন ফেইলারের কারনে এটি ক্রাশ করে। আর এতে পাইলট নিহত হয়। তবে ইন্সট্রাকটর পাইলট(স্কোয়াড্রন লিডার) ইজেক্ট করতে সক্ষম হয়।

বর্তমানে বাংলাদেশ বিমানবাহিনীতে এরকম ৭ টা সার্ভিসে আছে।

 

Aero L39 এর কিছু ছবিঃ

Aero L39 in the wide Sky
Aero L39 is flying
Advertisements