T-90MS Tagil ট্যাংকটি রাশিয়ার তৈরি বাংলাদেশের পরবর্তী ট্যাংক।

T-90MS হচ্ছে সবচেয়ে এ্যাডভান্সড রাশিয়ান T-সিরিজ ট্যাংক। এটি আগের রাশিয়ান T-90 এর উন্নত ও আপগ্রেড ভার্সন। অফিসিয়ালী রাশিয়ান আর্মড ফোর্সে সার্ভিসে আসে ২০১১ সালে। সবকিছু ঠিক থাকলে এটিই হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পরবর্তী ট্যাংক।

রাশিয়ার দাবি অনুসারে এটি হবে পৃথিবীর অন্যতম এ্যাডভান্সড ব্যাটল ট্যাংক। এতে আছে ইমপ্রুভড ফায়ারপাওয়ার, মোবিলিটি এবং প্রটেকশন সিস্টেম। এটি রাশিয়ার Uralvagonzavod ফ্যাক্টরীতে তৈরী করা হয়েছে।

শক্তিশালী আর্মার এবং অত্যাধুনিক কম্পিউটার প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে এই ট্যাংকে। নিভুল ভাবে লক্ষ্য বস্তুতে আঘাত করার জন্য রয়েছে ফায়ার কন্ট্রোল কম্পিউটার এবং লেজার রেঞ্জফাইন্ডার। শক্তিশালী ইস্পাতের আবরনের সাথে সিরামিক এবং ফাইবার আর্মার কারনে এই ট্যাংকের সমসাময়িক ট্যাংকগুলোর তুলনায় অনেক বেশি নিরাপদ ও হালকা প্রাথমিক অন্যান্য অস্ত্রের পাশাপাশি ২ টি মেশিন গান ব্যবহার করা হয়েছে এই ট্যাংকে।

রাসায়ানিক ও পারমাণবিক হামলা থেকে বাচার জন্য আছে বিশেষ এয়ারকুলেড প্রযুক্তি যার কারণে ৫ ঘণ্টা পর্যন্ত ক্রুদের নিরাপদ রাখতে পারবে এই ট্যাংক।

এবার সংক্ষেপে এই ট্যাংক টি সম্পর্কে জেনে নিইঃ

সাধারণ বৈশিষ্ট্যঃ

প্রস্তুতকারক দেশঃ রাশিয়া

ওজনঃ ৪৬ টন
দৈর্ঘ্যঃ ৬.৮ মিটার
প্রস্থঃ ৩.৫ মিটার
উচ্চতাঃ ২.৩ মিটার
ক্রু সংখ্যাঃ ৩ জন
ইঞ্জিনঃ ১১৫০ হর্স পাওয়ার 4-stroke V-84ms ডিজেল ইঞ্জিন
ফুয়েল ক্যাপাসিটিঃ ১৬০০ লিটার
প্রাথমিক অস্ত্রঃ ১২৫ মি.মি. স্মুথ বোর গান
মেশিনগানঃ ২ টি ৭.৬২ এম এম
অপারেশনাল রেঞ্জঃ ৫৫০ কি.মি.
গতিঃ ৭২ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায়
টাভাস রেঞ্জঃ ৩৬০ ডিগ্রী

আর্মারঃ

প্রচলিত স্টীল আর্মারের সাথে সিরামিক এবং ফাইবার আর্মার।

ড্রাইভার এবং গানারের জন্য ভার্চুয়াল রিয়ালিটি টেকনোলোজি।

অটোলোডার এর মাধ্যমে ৩ রকমের অ্যামো লোড করা পারফর্মেন্স।

বর্তমান সিরিয়া যুদ্ধে বিদ্রোহীদের কাছে এই ট্যাংক আমেরিকান TOW ও রাশিয়ান কর্ণেট এন্টি ট্যাংক মিসাইলের কাছে মার খেয়েছে। তাই এখন কোন ট্যাংকই নিরাপদ না !

কিছু ছবিঃ

T-90MS Tagil Main Battle Tank
T-90MS Tagil Main Battle Tank
T-90MS Tagil Main Battle Tank
T-90MS Tagil Main Battle Tank
T-90MS Tagil Main Battle Tank
T-90MS Tagil Main Battle Tank
T-90MS Tagil Main Battle Tank
T-90MS Tagil Main Battle Tank
Advertisements